বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭ 
Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / All News / করোনা মহামারীতেও মানবিক কাজ করছে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউসেট

করোনা মহামারীতেও মানবিক কাজ করছে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউসেট

করোনা মহামারীতেও মানবিক কাজ করে যাচ্ছে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউসেট। দেশের ১০৫ টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে মাত্র গুটি কয়েক বিশ্ববিদ্যালয় তাদের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের বেতন ও বোনাস পরিশোধ করে যাচ্ছে। ইউসেট একটি নতুন বিশ্ববিদ্যালয় হয়েও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও ইউজিসির নির্দেশনা অনুযায়ী এই প্রতিকুল পরিস্থিতিতে বকেয়া ও বেতনাদি প্রদান করছে। শুধু তাই নয়, দরিদ্র ও অসহায় ব্যক্তিদের মাঝে ত্রান ও ঈদ উপহার তুলে দিচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিগত ২৮ আগস্ট, ২০১৯ তারিখে ইউসেট (ইউনিভারসিটি অফ স্কিল এনরিচমেন্ট এন্ড টেকনোলজি) একটি নতুন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে শিক্ষা মন্ত্রনালয় থেকে অনুমোদন লাভ করে। ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ তারিখে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক এর পাঠ্যক্রম অনুমোদন লাভ করার পর পরই বিশ্ববিদ্যালয়টি ০৮ মার্চ, ২০২০ তারিখে থেকে এর উদ্ভোধনী সেমিস্টারের শিক্ষাকার্যক্রম শুরু করে। বিশ্বব্যাপী Covid-19 মহামারী ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে ১৭ মার্চ থেকে সরকার লক-ডাউন কার্যক্রম ঘোষণা করে। লক-ডাউন কালীন বিশ্ববিদ্যালয়টি এর সকল শিক্ষাকার্যক্রম অনলাইন লেকচারে মাধ্যমে পরিচালনা করে যাচ্ছে।

ইউসেট এর নিবেদিত শিক্ষক ও রেজিষ্ট্রার অফিসের দক্ষ কর্মকর্তা – কর্মচারিবৃন্দ যথা সময়ে মিডটার্ম পরীক্ষা সম্পন্ন করার জন্য নিরলশ ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোয়াজ্জেম হোসেন এবং মনোনীত উপাচার্য অধ্যাপক তানভীর এ. খান সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের এ ব্যাপারে সার্বক্ষণিক উৎসাহ যুগিয়ে যাচ্ছেন। এই সংকটময় সময়েও বিশ্ববিদ্যালয়টি অত্যন্ত দক্ষতার সাথে এর সকল কার্য়ক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে।

ইউসেট মাসের প্রথম দিনেই সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের (অত্যাবশ্যকীয়/অনঅত্যাবশ্যকীয়) পূর্ণাঙ্গ বেতন প্রদান করে যাচ্ছে। বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, ঈদুর ফিতরের ছুটির পূর্বেই ইউসেট এর কর্তব্যরত অত্যাবশ্যকীয় সকলের মে মাসের বেতন অগ্রিম প্রদান করেছে। যথাসময়ে নিয়মিত ভাবে বেতন প্রদানের এ সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালেয়র সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের যথাযথ ভাবে দায়িত্ব পলনে আরও উৎসাহিত করবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেছে কর্তৃপক্ষ।

সম্প্রতি এক আলোচনায় জুলাই ২০২০-এ দ্বিতীয় সেমিস্টার শুরুর সকল কর্ম পরিকল্পনা সম্পন্ন করা হয়। উক্ত আলোচনায় প্রথাগত এবং ডিজিটাল বিজ্ঞাপনের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয় এবং গৃহীত সিদ্ধান্ত সমূহ দ্রুত বাস্তবায়নে জন্য গুরুত্বআরপ করা হয়। উক্ত আলোচনায় তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর অনলাইন বিজ্ঞাপন, ভর্তি, রেজিস্ট্রেশন, অর্থনৈতিক বিষয়াদি, ক্লাস লেকচার, পরীক্ষা ইত্যাদি বিষয়েও আলোকপাত করা হয়।

error: Content is protected !!