শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬ 
Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / আইন ও আদালত / ৮ম শ্রেনীর ছাত্রীকে ৮দিন আটকে রেখে ধর্ষন চেষ্টার ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা সহ দুই জনের নামে মামলা। গ্রেফতার-১

৮ম শ্রেনীর ছাত্রীকে ৮দিন আটকে রেখে ধর্ষন চেষ্টার ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা সহ দুই জনের নামে মামলা। গ্রেফতার-১

নিজস্ব সংবাদদাতা  :

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে ৮ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ৮দিন আটকে রেখে পাষবিক নির্যাতন করে ধর্ষন চেষ্টার ঘটনায় শ্যামনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাফিজুর রহমান সহ এক প্রবাসির স্ত্রীর নামে মামলা দায়ের হয়েছে। এ ঘটনায়  বিদেশ প্রবাসির স্ত্রী আয়শা খাতুনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঘটনার পর থেকে ছাত্রলীগ নেতা হাফিজুর রহমান পালাতক রয়েছে। হাফিজুর রহমান গোপালপুর গ্রামের মৃত. আব্দুল হামিদ সরদারের ছেলে ।

শ্যামনগর থানার ওসি আনিসুর রহমান জানান, কৈইখালি এস আর মাধ্যমিক স্কুলের ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী লিমা পারভিনকে ফেসবুকে প্রেম সম্পর্ক গড়ে তুলে ১৮ আগষ্ট তাকে তুলে নিয়ে যায় সাবেক শ্যামনগর উপজেলা ছাত্র লীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান। মেয়েটি নিখোজ হওয়ার পর ওই দিনেই মেয়েটির দাদা গহর আলী শ্যামনর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। এরপর পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধারে তৎপরতা শুরু করে।

রোববার রাতে উপজেলার গোপালপুর এলাকার প্রবাসি রঞ্জুর স্ত্রী আয়শা খাতুনের বাড়ী থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। এ সময় উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাফিজুল ইসলাম পুলিশের অভিযান টের পেয়ে ছাদ থেকে লাফিয়ে পালিয়ে যায়। পরে বাড়ির মালিক গৃহবধু আয়েশা খাতুনকে আটক করে পুলিশ। এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর দাদা গহর আলী বাদি হয়ে ছাত্রলীগ নেতা হাফিজুর রহমানের নামে নির্যাতন ও ধর্ষন চেষ্টার মামলা দায়ের করেন। মামলা নাম্বর-২৮।

পুলিশ এবং মেয়েটির পরিবার আরও জানায়, ফেসবুকের মাধ্যমে হাফিজুলের সাথে পরিচয় হয়। একটা সময় প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে ওঠে তাদের মধ্যে। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ১৮ আগষ্ট বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় হাফিজুল। এরপর গোপালপুর এলাকায় প্রবাসী রজ্ঞুর বাড়িতে টানা আট দিন রেখে জোর পূর্বক পাষবিক নির্যাতন করে হাফিজুল। এসব কাজে সহযোগিতা করে প্রবাসীর স্ত্রী আয়েশা খাতুন।

error: Content is protected !!