বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬ 
Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / সাতক্ষীরা / কালিগঞ্জ / সাতক্ষীরায় ঢাবির ছাত্রীকে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ, কালিগঞ্জের রাজু আটক

সাতক্ষীরায় ঢাবির ছাত্রীকে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ, কালিগঞ্জের রাজু আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে জোরপূর্বক ধর্ষণের পর ভিডিও ধারণ এবং ব্লাকমেইল করে ল্যাপটপসহ লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে আব্দুল হাই ওরফে রাজু (২৬) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।
ভুক্তভোগী কালিগঞ্জ উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামের মেয়ে ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ বর্ষের ওই ছাত্রী নিজেই থানায় এজাহার দেন। এরপর মঙ্গলবার (১৮ জুন) সকালে থানার উপ-পরিদর্শক সালাহউদ্দিন আহমেদ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত রাজুকে আটক করেন। সে উপজেলার কুশুলিয়া ইউনিয়নের বাজার গ্রাম রহিমপুর গ্রামের শেখ রওশান আলীর ছেলে।
এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ৫ মাস পূর্বে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রীর একবন্ধু উপজেলার কুশুলিয়া ইউনিয়নের কলিযোগা গ্রামের সিদ্দিক ঢালীর ছেলে রোকনুজ্জামান (২৫) ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। সেই সময় অসুস্থ বন্ধুকে দেখতে গেলে আব্দুল হাই ওরফে রাজুর সাথে পরিচয় হয় ওই ছাত্রীর। পরবর্তীতে রাজু ওই ছাত্রীর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে তার সাথে কথা বলতে থাকে। একপর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী ও রাজু তাদের অসুস্থ বন্ধু রোকনুজ্জামানের চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন ব্যাক্তি/প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আর্থিক সাহায্য গ্রহণ করতে থাকে। এভাবেই তাদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠে।
সেই সুযোগে গত ১৪ এপ্রিল ওই ছাত্রী ঢাকা থেকে বাস যোগে বাড়ি আসার পথিমধ্যে রাজু ওই ছাত্রীকে বাস থেকে নামিয়ে নলতায় তার এক অজ্ঞাত বোনের বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে রাজু ওই ছাত্রীকে গ্রামের প্রস্তাবসহ কুপ্রস্তাাব দিলে সে রাজী না হওয়ায় তাকে মারপিট করে। একপর্যায়ে রাত ১০ টার দিকে রাজু ধারালো চাকু দেখিয়ে হত্যার হুমকি দিয়ে রাতভর জোরপূর্বক ধর্ষণ করে এবং মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে।
পরের দিন ওই ছাত্রী বাড়িতে আসার পর রাজু তাকে মোবাইলের মাধ্যমে হুমকি দিয়ে বলে এই ব্যাপারে কাউকে কিছু বললে সে এই ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেবে। মানসম্মানের ভয়ে ওই ছাত্রী এসব ঘটনা কাউকে কিছু বলেনি।
পরবর্তীতে রাজু ধারণকৃত ভিডিও চিত্র দিয়ে ব্লাকমেইল শুরু করে। এপর্যন্ত সে ব্রাকমেইল করে এক লক্ষ সত্তর হাজার টাকা এবং একটি ল্যাপটপ হাতিয়ে নিয়েছে বলে এজাহার সূত্রে জানা যায়।
সর্বশেষ গত ২২ মে রাত সাড়ে ৯ টার দিকে রাজু তার ব্যবহৃত ০১৯৬০-০১৪৭৪১ নম্বর থেকে ওই ছাত্রীর ফোন নম্বরে ফোন করে আরও দুই লক্ষ টাকা দাবি করে। অবশেষে ওই ছাত্রী বিষয়টি তার পরিবারকে জানিয়ে সোমবার থানায় এজাহার দায়ের করেন।
ঘটনার সতত্য স্বীকার করে থানার পরিদর্শক (তদন্ত এসএম আজিজুর রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণ, ব্রাকমেইল করে ল্যাপটপসহ লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত রাজুকে আটক করে ব্রাকমেইল করে নেওয়া ল্যাপটপটি উদ্ধার করেছে। মঙ্গলবার (১৮ জুন) দুপুরের দিকে আসামিকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
এদিকে অভিযুক্ত রাজুর বাবা শেখ রওশান আলী বলেন, এসব ব্যাপারে আমরা প্রথমে কিছুই জানতাম না। তবে সোমবার বিষয়টি লোকমুখে শুনে জানতে পারি আমার ছেলের সাথে ওই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক। হঠাৎ তাদের মধ্যে ভুল বুঝাবুঝি হলে ওই ছাত্রী থানায় অভিযোগ দিলে পুলিশ আমার ছেলেকে আটক করেছে।

error: Content is protected !!